সাধারণ জ্ঞানে ভাল করার অসাধারণ কৌশল

সাধারণ জ্ঞান বিসিএস পরীক্ষায় অনেক গুরুত্বপূর্ণ  বিষয়। সাধারণ জ্ঞান হচ্ছে কারও কাছে আগ্রহের বিষয় আবার কাছে ভয়ের কারণ। প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা তথা বিসিএসের ক্ষেত্রে সাধারণ জ্ঞানে আপনাকে অবশ্যই অসাধারণ হতে হবে। সাধারণ জ্ঞানের দক্ষতা না থাকলে বিসিএস পরীক্ষায় ভাল করা যাবে না। শুধু প্রিলিমিনারি নয়, লিখিত ও ভাইভায় এর প্রভাব অনেক সুদূরপ্রসারী। তাই যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়ে এই বিষয় গুলো পড়তে হবে। তাই সময়কে যথাযথ ভাবে কাজে লাগাতে হবে। এ সময় যে যত কৌশলী হবে সে তত ভালো করবে, এটাই স্বাভাবিক।

সাধারণ জ্ঞানে দুইটা ভাগ প্রশ্ন করে হয়ে থাকে। যথা:
১) বাংলাদেশ বিষয়াবলি – ৩০ নম্বর। এবং
২) আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি- ২০ নম্বর

অর্থাৎ সর্বমোট ৫০ নম্বরের প্রশ্ন আসে সাধারণ জ্ঞান থেকে। তাই গুরুত্বের সাথে পড়ে এগিয়ে যেতে হবে। এই সব বিষয়ে ভালো করার জন্য নিচে উল্লিখিত পদক্ষেপ অনুসরণ করতে পারেন।

১) সাধারণ জ্ঞানের জন্য ভাল গাইডও অনুসরণ করতে পারেন।

২) প্রতিদিন প্রস্তুতিমূলক ওয়েবসাইট ও পত্রিকা পড়ার অভ্যাস করতে হবে। দৈনিক এক ঘণ্টা সময় হবে। প্রথম, শেষ, সম্পাদকীয়, অর্থনীতি ও আন্তর্জাতিক বিষয়ে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাকে। তা ভালভাবে পড়ুন এবং নোট করুন।

৩) অষ্টম ও নবম-দশম শ্রেণির বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বই, নবম-দশম শ্রেণির ইতিহাস ও পৌরনীতি বই গুলো ভালভাবে পড়তে হবে।

৪) সংবিধান সাধারণ জ্ঞানের অন্যতম একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। সংবিধান প্রণয়নের ইতিহাস এবং সংশোধনীসমূহ বিষয়ে পড়ে আয়ত্ত করে রাখবেন।

৫) ব্রিটিশ শাসনের কিছু বিষয় মনোযোগ দিয়ে পড়লেই হবে। যেমন: পলাশী যুদ্ধ, ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি, বক্সারের যুদ্ধ, চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত, নীল বিদ্রোহ, সিপাহি বিদ্রোহ ইত্যাদি।

৬) ১৯৪৭ থেকে ১৯০৫ সাল পর্যন্ত ব্রিটিশ শাসন আমল গুরুত্বসহকারে পড়তে হবে। তারপর, গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা গুলো হলো- বঙ্গভঙ্গ, বঙ্গভঙ্গ রদ, লক্ষ্ণৌ চুক্তি, সাইমন কমিশন, জিন্নাহর ১৪ দফা, লাহোর প্রস্তাব, ভারত স্বাধীনতা আইন।

৭) বাংলাদেশ ও বিশ্বের দুইটি মানচিত্র সংগ্রহে করে রাখবেন। যা বিভিন্ন দেশের ভৌগোলিক বিষয়, দেশগুলোর অবস্থান বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করা যাবে। তবে মাঝে মাঝে একটু খেয়াল করে দেখবেন।

৮) কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স ও তথ্যবিষয়ক মাসিক ম্যাগাজিন পাওয়া যায়, তা সংগ্রহ করে রাখবেন এবং মাসের শুরুতেই পড়ে শেষ করে ফেলবেন।

৯) সাধারণ জ্ঞানের বিভিন্ন বিষয় সব সময় পরিবর্তন হতে থাকে তা খেয়াল রাখতে হবে।

১০) আন্তর্জাতিক সাধারণ জ্ঞানের বিভিন্ন বিষয় সব সময় পরিবর্তন ও সংযোজন হয়ে থাকে তা জেনে নিতে হবে।

১১) আমেরিকায় সংঘটিত স্বাধীনতাযুদ্ধ, খণ্ডবিখণ্ড জার্মানির একত্রীকরণ, প্রথম বিশ্বযুদ্ধ, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ, স্নায়ুযুদ্ধ, জাতিসংঘের উত্থান ও অঙ্গসংগঠনসমূহ ইত্যাদি এ সব আন্তর্জাতিক বিষয়ে পড়াশোনা করতে হবে।

১২) ঐতিহাসিক কোনো ঘটনার প্রেক্ষাপট সম্পর্কিত প্রশ্ন পড়তে হবে।

১৩) সাম্প্রতিক বিষয় থেকে প্রশ্ন হবেই তা জেনে নিতে হবে। বর্তমান সময়ে যা সবচেয়ে বেশি আলোচিত ঘটনা তা বিষয়ে তথ্য জানতে হবে।

১৪) বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সমীক্ষা বিষয়ে তথ্য পড়তে হবে।

১৫) বাংলাদেশ বিষয়াবলি ও আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি পড়ার জন্য প্রতিদিন কিছু সময় বরাদ্দ রাখবেন। এবং সব সময় চর্চার উপর থাকবেন।

১৬) ফেসবুকে সাধারণ জ্ঞানভিত্তিক অনেক ফেসবুক পেজ বা ফেসবুক গ্রুপ রয়েছে । এই সব পেজ এবং গ্রুপে যুক্ত হলে বিভিন্ন বিষয়ভিত্তিক আপডেট তথ্য পাওয়া যাবে।

আর অনেক কিছু প্রশ্ন অজানা থাকবে এটাই স্বাভাবিক। এটা নিয়ে খুব বেশি হতাশ হওয়ার কোন প্রয়োজন নেই। তাই, ভালো করে আয়ত্ত করুন আশা করি ভালো পরীক্ষার প্রস্তুতি হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!